প্রকৃতি ও পরিবেশের সুরক্ষার জন্য আমরা যা যা করবো
প্রকৃতি ও পরিবেশের সুরক্ষার জন্য আমরা যা যা করবো

প্রকৃতি ও পরিবেশের সুরক্ষার জন্য আমরা যা যা করবো

5/5 - (2 votes)

প্রকৃতি ও পরিবেশের সুরক্ষার জন্য আমরা যা যা করবো

মানুষ সামাজিক জীব। সামাজিক জীব হলেও প্রকৃতির কোলেই বেড়ে ওঠে মানুষ। আর আমাদের আশ্রয়দাতা প্রকৃতির প্রতি আমাদের রয়েছে অনেক কর্তব্য। প্রকৃতিকে সহজ সুন্দর ও বাসযোগ্য রাখা আমাদের দায়িত্ব। প্রকৃতিকে দূষণমুক্ত ও বাসযোগ্য রাখলে তা আমাদের জন্য কল্যাণকর। প্রকৃতির সুরক্ষার জন্য আমাদের বেশকিছু করণীয় রয়েছে। আমাদের কর্তব্য গুলো নিজেদের পালন করতে হবে এবং অন্যদের পালন করতে উদ্বুদ্ধ করতে হবে।

চলুন জেনে নেই প্রকৃতি ও পরিবেশের সুরক্ষার জন্য আমরা যা যা করবো .

প্রকৃতি ও পরিবেশের সুরক্ষার জন্য আমরা যা যা করবো

প্রকৃতির কল্যাণের জন্য সবার আগে প্রচুর পরিমাণে গাছ লাগাতে হবে। গাছ আমাদের অক্সিজেন দেয়। পর্যাপ্ত পরিমাণে গাছ লাগালে প্রকৃতির ঠান্ডা থাকে এবং সেইসাথে পর্যাপ্ত অক্সিজেনের যোগান হয়।
নিজেদের গাছ লাগাতে হবে এবং সেইসাথে এলাকার সবাইকে গাছ লাগাতে উৎসাহিত করতে হবে।

যেখানে সেখানে ময়লা আবর্জনা ফেলা যাবে না।ময়লা আবর্জনা যেখানে-সেখানে ফেলে এসব রোগ জীবাণু বাতাসের সাথে মিশে প্রকৃতির ক্ষতি করতে পারে এবং সেইসাথে আমাদের শ্বাসনালীর ক্ষতি করে।
এজন্য একটি নির্দিষ্ট স্থানে গর্ত করে ময়লা আবর্জনা পুঁতে ফেলতে হবে। নদীর ধারে ময়লা ফেলে সেই জীবাণু নদীর পানিতে মিশে যায় ফলে পানি দূষিত হয়।

প্লাস্টিক পলিথিনের ব্যাগ মাটিতে ফেলে প্লাস্টিক এর কারখানা জমা দিতে হবে। প্লাস্টিক ও পলিথিন মাটিতে কখনো মেশে না বা পচে না।
তাই এগুলো মাটিতে ফেলে মাটির গুণাগুণ নষ্ট হয়। কাজেই প্লাস্টিকের কোন দ্রব্য মাটিতে ফেলা যাবে না।

প্রকৃতি ও পরিবেশের সুরক্ষার জন্য আমরা যা যা করবো
  • বসত বাড়ির আশেপাশে কোন কল কারখানা স্থাপন করা যাবে না। জনবহুল এলাকায় কল কারখানা স্থাপন করলে শব্দ দূষণের কারণে মানুষের ক্ষতি হয়।এছাড়া কল-কারখানার কালো ধোঁয়া পরিবেশের ক্ষতি করে।
  • তাই মানুষের বসতি থেকে অনেক দূরে কল কারখানা স্থাপন করতে হবে।
  • এছাড়া কল-কারখানার কালো ধোঁয়া পরিশোধের ব্যবস্থা করতে হবে।
  • সেখানকার কোন আবর্জনা পানিতে ফেলা যাবে না।
  • কৃষি জমিতে রাসায়নিক সার ব্যবহারের পরিবর্তে জৈব সার ব্যবহার করতে হবে। রাসায়নিক সার ও কীটনাশক মাটির ক্ষতি করে।
  • আমাদের দৈনন্দিন ব্যবহার্য শাকসবজি থেকে পাওয়া উচিত এবং গোবর ব্যবহার করে তৈরি জৈব সার জমিতে প্রয়োগ করতে হবে।
  • জৈব সার জমির উর্বরতা বৃদ্ধি করে এবং পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর নয়।

যানবাহনের কালো ধোঁয়া পরিবেশ দূষণ ঘটায়। তাই মোটর গাড়ির ব্যবহার কমাতে হবে। মোটর গাড়ির পরিবর্তে বাইসাইকেল রিকশা-ভ্যান ইত্যাদি ব্যবহার করার চেষ্টা করতে হবে।
কম দূরত্ব যাতায়াতের ক্ষেত্রে পায়ে হেঁটে যাতায়াত করতে হবে ।

প্রকৃতি ও পরিবেশের সুরক্ষার জন্য আমরা যা যা করবো

প্রচুর পরিমাণে বনায়ন করতে হবে। দরকার হলে সামাজিক আলোচনার মাধ্যমে উদ্যোগ নিয়ে প্রতিদিন কমপক্ষে একটি করে হলেও গাছ লাগাতে হবে।
মনে রাখবেন প্রকৃতির বাইরে আমরা বসবাস করতে পারিনা। যেহেতু প্রভৃতির মধ্যে আমরা বেড়ে উঠেছি তাই প্রকৃতিকে বাসযোগ্য প্রদুষণ মুক্ত রাখা আমাদের কর্তব্য।
ব্যক্তিগত উদ্যোগ নয় বরং সম্মিলিত উদ্যোগ এর মাধ্যমে প্রকৃতির কল্যাণে এগিয়ে আসা সম্ভব।

 

 

About bdbarguna24

Check Also

বাংলা ভাষা আন্দোলনের পটভুমি (১৯৩৬-১৯৫২)

5/5 - (1 vote) বাংলা ভাষা আন্দোলনের পটভুমি (১৯৩৬-১৯৫২) বাংলা ভাষা আন্দোলনের পটভুমি (১৯৩৬-১৯৫২) – …

2 comments

  1. Pingback: আফরান নিশোর জীবন কাহিনী - BD BARGUNA 24 Best News 2022

  2. Pingback: আলোর প্রতিফলনের মাধ্যমে আমরা কিভাবে কোন বস্তু দেখতে পাই? - BD BARGUNA 24