স্ত্রী গর্ভবতী অবস্থায় এওকজন স্বামীর করনীয়
স্ত্রী গর্ভবতী অবস্থায় এওকজন স্বামীর করনীয়

স্ত্রী গর্ভবতী অবস্থায় এওকজন স্বামীর করনীয়

Rate this post

স্ত্রী গর্ভবতী অবস্থায় এওকজন স্বামীর করনীয়

স্ত্রী গর্ভবতী অবস্থায় এওকজন স্বামীর করনীয়

প্রতিটা স্বামী স্ত্রীর স্বপ্ন দেখে তাদের জীবনে একটি সন্তান আসুক।
ঘর আলো করে একটি সন্তান আসলে স্বামী স্ত্রীর বাবা-মা আত্মীয়-স্বজন সবাই খুব খুশি হয়। তাদের সম্পর্ক পূর্ণতা পায় একটি সন্তানের মাধ্যমে। স্ত্রী গর্ভবতী হলে তার প্রতি স্বামীর অনেক করণীয় থাকে। কারণ গর্ভবতী অবস্থায় অনেক রকম অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয়। আজকে আমরা জেনে নেবো স্ত্রী গর্ভবতী হলে স্বামী তাকে কিভাবে সাহায্য করবেন। ভাইদের প্রতি অনুরোধ এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়বেন এবং এই অনুযায়ী আপনার স্ত্রীকে যত্ন করবেন।

 

 

স্ত্রী গর্ভবতী অবস্থায় এওকজন স্বামীর করনীয়

গর্ভবতী হলে একজন স্ত্রী সব কাজে অপারগ হয়ে পড়েন। তার শরীরের ওজন বেড়ে যায় এবং অস্বাভাবিক ভাবে পেট ফুলে যায়। কারণ পেটের ভিতর একটি নতুন জীবন বড় হতে থাকে। এ সময়ে একজন নারীর প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে। স্বাভাবিকভাবেই গর্ভাবস্থায় মুখের রুচি থাকে না। তখন মেয়েরা কিছুই খেতে চায় না, তাই এ সময়ে তার স্বামীর উচিত তাকে জোর করে হলেও পুষ্টিকর খাবার খাওয়ানো। তাকে হাত দিয়ে খাবার খেতে না দিয়ে, নিজে হাতে খাইয়ে দেয়া। স্ত্রীকে প্রথম প্রথম রান্নার কাজে সাহায্য করা এবং পরবর্তীতে ওজন দ্রুত বৃদ্ধি পেতে থাকলে তাকে পুরোপুরি ভাবে রান্নার কাজ থেকে দূরে রাখা। কারণ এ সময়ে নিজের প্রতি নিয়ন্ত্রণ থাকেনা। যেকোনো সময়ে অগ্নিকাণ্ড হয়ে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এজন্য আপনার স্ত্রীকে সবসময় কাজে সাহায্য করুন এবং যথাসম্ভব তার কাছে কাছে থাকুন।

স্ত্রী গর্ভবতী অবস্থায় এওকজন স্বামীর করনীয়

তার শরীর খারাপ হলে অবশ্যই ডাক্তারের কাছে নিয়ে যান। এবং কমপক্ষে দুই সপ্তাহ পর একবার তাকে চেকআপ করিয়ে আনবেন। আপনার সন্তান সুস্থ আছে কিনা তা পরীক্ষা করে দেখবেন।
আপনার স্ত্রী নিয়মিত পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবার খাচ্ছে কিনা তা খেয়াল রাখবেন।তার খাদ্যতালিকায় দুধ ডিম মাছ মাংস শাকসবজি ফলমূল অন্তর্ভুক্ত রাখবেন। তাকে প্রচুর পরিমাণে পানি খাওয়াবেন। সে খেতে না চাইলে আদর করে বুঝিয়ে খাওয়াবেন।আপনার স্ত্রী নিজের জন্য না হোক আপনাদের সন্তানের জন্য তাকে খেতে হবে।

স্ত্রী গর্ভবতী অবস্থায় এওকজন স্বামীর করনীয়

গর্ভাবস্থায় একজন নারীর মনে নানারকম বিষন্নতা কাজ করে। তাই শরীরের মধ্যে সবসময় ভালো লাগেনা। এবং মানসিকভাবে ও তার ভেঙে পড়ার আশঙ্কা থাকে।একজন স্বামীর উচিত সর্বোচ্চ চেষ্টা করে তার স্ত্রীকে হাসিখুশি ও প্রফুল্ল রাখা।

স্ত্রী গর্ভবতী অবস্থায় এওকজন স্বামীর করনীয়

একজন স্বামী পারে তার স্ত্রী এর মন ভালো রাখতে। তাই এ সময়ে তার সাথে গল্পগুজব হাসি-ঠাট্টা এবং তাকে মানসিকভাবে সময় দিতে হবে। এ সময়ে আপনার স্ত্রীকে জামা কাপড় ধুতে দিবেন না। কারণ বাথরুমে পিচ্ছিল অবস্থায় সে হঠাৎ পড়ে গিয়ে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। রাতে যখন আপনার স্ত্রী বাথরুমে যাবে তখন তার সাথে যাবেন। যাতে তার পড়ে যাওয়ার আশঙ্কা না থাকে। এছাড়া উঁচু সিরি থেকে তাকে নামতে সাহায্য করবেন।

স্ত্রী গর্ভবতী অবস্থায় এওকজন স্বামীর করনীয়

তাই গর্ভাবস্থায় আপনার স্ত্রীকে সঠিক পরিচর্যা করুন। তাকে মানসিকভাবে সাপোর্ট করুন এবং তার ভয় দূর করতে তার সাথে খোলামেলা ও হাসিখুশি ভাবে কথা বলুন।

স্ত্রী গর্ভবতী অবস্থায় এওকজন স্বামীর করনীয়

যথাসম্ভব রাতে তাড়াতাড়ি বাড়ি ফেরার চেষ্টা করবেন। অযথা বন্ধু-বান্ধবের সাথে আড্ডা না দিয়ে আপনার স্ত্রীকে সময় দিন। অন্তত এই সময়টা তার সাথে ভালো ভাষায় কথা বলুন। সে যেন কোনভাবেই নিজেকে একা মনে না করে।

আপনার সন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়ার পর আপনার স্ত্রী এর খোঁজ নিন, আপনার স্ত্রী সুস্থ আছে কিনা তা খেয়াল করুন।এবং আপনার সন্তান সুস্থ ভাবে ভূমিষ্ঠ হওয়ার পর আপনার স্ত্রী এবং সন্তানের যত্ন করুন ।

মহাজাগোতিক আরো জানতে

যে লক্ষণগুলো দেখলে বুঝবেন আপনার স্বামী পরকীয়া করছে

About bdbarguna24

Check Also

০-৪ বছর বয়সে আপনার শিশুকে যা যা শিক্ষা দিবেন

5/5 - (1 vote) ০-৪ বছর বয়সে আপনার শিশুকে যা যা শিক্ষা দিবেন একটি শিশু …

Leave a Reply Cancel reply